অঙ্কিতদের সঙ্গে প্রস্তুিত ম্যাচে নজর কাড়লেন আবেশ

ভদোদরা: ব্যাট হাতে বড় রানের ইনিংস খেলেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল, শ্রেয়স আইয়ার, আঙ্কিত বাউনিরা৷ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে বোর্ড সভাপতি একাদশের হয়ে বল হাতে নজর কাড়েন আবেশ খান৷

আরও পড়ুন: যুব এশিয়া কাপে দুরন্ত জয় ভারতের

ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে দু’দিনের অনুশীলন ম্যাচে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় ইন্ডিয়ান বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশ৷ অঙ্কিত বাউনির শতরান এবং মায়াঙ্ক ও শ্রেয়সের হাফসেঞ্চুরিতে ভর করে তারা ৬ উইকেটে ৩৬০ রান তুলে ইনিংসের সমাপ্তি ঘোষণা করে৷

– Advertisement –

ওপেন করতে নেমে পৃথ্বী শ (৮) ব্যর্থ হলেও মায়াঙ্ক আগরওয়াল বড় রানের ইনিংস খেলেন৷ অল্পের জন্য ব্যক্তিগত শতরান হাতছাড়া করেন তিনি৷ ১১১ বলে ৯০ রান করার পথে মায়াঙ্ক ১৪টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন৷ সদ্য টেস্ট অভিষেক করা হনুমা বিহারী মাত্র ৩ রান করে আউট হন৷

আরও পড়ুন: টিকিট বিতর্কে সরতে পারে বিরাটদের ম্যাচ

দলনায়ক করুণ নায়ার সেট হয়ে উইকেট দিয়ে আসেন৷ তিনি প্যাভিলিয়নে ফেরেন ২৯ রান করে৷ শ্রেয়স আইয়ার ৬৪ বলে ৬১ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন৷ তিনি তিনটি চার ও পাঁচটি ছক্কা মারেন৷ অঙ্কিত নটআউট থাকেন ১১৬ রান করে৷ ১৯১ বলের ধৈর্য্যশীল ইনিংসে তিনি ১৫টি চার মারেন৷ দেবেন্দ্র বিশু ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে তিনটি উইকেট নেন৷জবাবে ব্যাট করতে নেমে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৭ উইকেটে ৩৬৬ রান তুলে ইনিংস ডিক্লেয়ার করলে ম্যাচ ড্র ঘোষিত হয়৷ সুনীল অ্যাম্ব্রিস ৯৮ বলে ১১৪ রান করে অপরিজত থাকেন৷ তিনি ১৭টি চার ও ৫টি ছক্কা মারেন৷ স্বাভাবিকভাবেই ভারতের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের দলে ঢোকার যোগ্য দাবি জানিয়ে রাখলেন তিনি৷ শেন ডওরিচ ৬৯ বলে ৬৫ রানের আগ্রাসী ইনিংস খেলেন৷

আরও পড়ুন: দলে ফিরলেন বিরাট, বাদ পড়লেন ধাওয়ান

এছাড়া ক্রেগ ব্রাথওয়েট ৫২, কিয়েরন পাওয়েল ৪৪, সাই হোপ ৩৬ ও হ্যামিল্টন ২৩ রান করে আউট হন৷ আবেশ খান ৬০ রানের বিনিময়ে ৪টি উইকেট নেন৷ ১২৬ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন সৌরভ কুমার৷ একটি উইকেট জলজ সাক্সেনার৷ ৯ ওভার হাত ঘুরিয়ে তিনটি মেডেনসহ ৩১ রান খরচ করলেও কোনও উইকেট পাননি ইশান পোড়েল৷

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published.